adimage

২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯
সকাল ১০:৩৪, শনিবার

আদালতে নাতির স্বীকার : সম্পত্তির জন্যই দাদাকে হত্যা

আপডেট  01:38 AM, অগাস্ট ০৮ ২০১৯   Posted in : জাতীয় দোহার-নবাবগঞ্জের সংবাদ    

আদালতেনাতিরস্বীকার:সম্পত্তিরজন্যইদাদাকেহত্যা

প্রিয় বাংলা অনলাইন.

ঢাকার নবাবগঞ্জে নুরুল হক (৭৫) নামে এক বৃদ্ধকে শ্বাসরোধ  করে হত্যার দায় স্বীকার করেছেন নিহতের নাতি ইব্রাহিম। বুধবার দুপুরে চীপ জুডিশিয়াল আমলী নবাবগঞ্জ ঢাকা আদালতে তাকে হাজির করা হলে সে এ হত্যার দায় স্বীকার করে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দেন। পরে আদালত আসামী ইব্রাহিমকে কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নিহতের স্ত্রী রাজিয়া বেগম বাদী হয়ে নবাবগঞ্জ থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেণ। ইব্রাহীম নিহত নুরুল হকের মেজু ছেলে সিরাজের সন্তান।

নবাবগঞ্জ থানার বারুয়াখালী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পরিদর্শক মো. নাসির উদ্দিন জানান, নুরুল হক হত্যায় সন্দেহে ঘটনার দিনই নিহতের মেজু ছেলে সিরাজ, নাতি ইব্রাহিম ও ছোট মেয়ের জামাই রওশনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়। প্রাথমিক ভাবে পুলিশের কাছে ইব্রাহিম তার দাদা নুরুল হক কে হত্যার করার দায় স্বীকার করেণ। বুধবার দুপুরে তাকে আদালতে হাজির করা হলে সে সম্পত্তির লোভে তার দাদাকে একাই গলায় গামছা পেছিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেণ বলে আদালতে জবানবন্দী দেন ইব্রাহিম।

পরিদর্শক নাসির উদ্দিন আরও জানান, এঘটনায় বাকী দুইজনের ব্যাপারে তদন্ত অব্যাহত রয়েছে।  হত্যার সাথে জড়িত পাওয়া গেলে তাদেরকেও আইনের আওতায় আনা হবে।

গত মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার শিকারীপাড়া ইউনিয়নের শেরপুর গ্রামের নুরুল হক (৭৫) কে শ্বাসরোধ করে  হত্যা করা হয়। নুরুল হক ওই গ্রামের মৃত. সুখাই বাবুর্চির ছেলে।




সর্বাধিক পঠিত

Comments

এই পেইজের আরও খবর

মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন

nazrul