adimage

০১ এপ্রিল ২০২০
বিকাল ০৭:১৬, বুধবার

পিতা মাতার ভুলের কারণে সন্তান বিপদগামী হয়ে যেতে পারে: ঢাকা জেলা প্রশাসক

আপডেট  10:15 AM, ফেব্রুয়ারী ১৮ ২০২০   Posted in : ঢাকা দোহার-নবাবগঞ্জের সংবাদ    

পিতামাতারভুলেরকারণেসন্তানবিপদগামীহয়েযেতেপারে:ঢাকাজেলাপ্রশাসক

নিজস্ব প্রতিবেদক:

ঢাকা জেলা প্রশাসক আবু ছালেহ মোহাম্মদ ফেরদৌস খান বলেছেন, পিতা মাতাকে সন্তানের খোঁজখবর রাখতে হবে। প্রত্যেক বাবা মাতার দায়িত্ব তাদের সন্তানকে ভালোবাসা দেওয়ার। সন্তানরা পিতামাতার আশ্রয় না পেলে খারাপ পথে চলে যায়। পিতা মাতার ভুলের কারণে সন্তান বিপদগমাী হয়ে যেতে পারে। তাই অভিভাকদের উচিত সব সময় সন্তানের খবর রাখা। তাহলে সন্তানরা বিপদগামী হবে না। 

মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকার নবাবগঞ্জের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে নবাবগঞ্জ উপজেলা প্রশাসন আয়োজিত বাল্যবিবাহ, যৌতুক, ইভটিজিং, মাদক,সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ বিরোধী অবহিতকরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক আরো বলেন, নবাবগঞ্জে মাদক নির্মূলে প্রশাসন কাজ করে যাচ্ছে। তবে সমাজ থেকে সম্পূর্ণ মাদক নির্মূল করতে হলে প্রশাসনের কাজকে আরো বেগবান করতে হবে। আমরা যে যেখানে রয়েছি সেখান থেকেই কাজ করতে হবে। একই সাথে বাল্য বিবাহ রোধে কাজীদের আরো সচেতন হতে হবে। বিবাহের ক্ষেত্রে জন্ম তারিখ যাচাই বাছাই করে বিয়ে পড়াতে হবে। ইভটিজিং ও জঙ্গীবাদকে প্রশ্রয় দেওয়া হবে না।

এর আগে প্রধান অতিথি উপজেলার ১৩ জন জয়ীতাকে সম্মানা স্মারক, দরিদ্রদের মাঝে গবাদিপশু ও হাঁসমুরগী পালনে ঋণের চেক  দগ্ধ ও প্রতিন্ধীদের সুদমুক্ত ঋনের চেক এবং প্রতিবন্ধীদের আইডি কার্ড বিতরণ করেণ।

নবাবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এইচ এম সালাউদ্দীন মনজুর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি নাসির উদ্দিন আহমেদ ঝিলু ও নবাবগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ মো. মোস্তফা কামাল প্রমুখ।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) রাজিবুল ইসলামসহ নবাবগঞ্জের বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যানবৃদ, শিক্ষক ও বিভিন্ন মসজিদের ইমামগণ।


সর্বাধিক পঠিত

Comments

এই পেইজের আরও খবর

মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন

nazrul