adimage

০৯ Jul ২০২০
সকাল ০৭:৪০, বৃহস্পতিবার

ব্যবসায়ীর ঈদ উপহার পেলেন হতদরিদ্ররা

আপডেট  04:08 PM, মে ২৩ ২০২০   Posted in : দোহার-নবাবগঞ্জের সংবাদ    

ব্যবসায়ীরঈদউপহারপেলেনহতদরিদ্ররা

নিজস্ব প্রতিবেদক:

ঢাকার নবাবগঞ্জের ঈদ উপলক্ষে হতদরিদ্র ও অসহায় পরিবারকে ঈদ সামগ্রী উপহার দিলেন হাসনাবাদ নিবাসী  রোজ লীফ ডেভেলপার লিমিটেডের চেয়ারম্যান ও বান্দুরা সিজান মাল্টি শপিং মলের মালিক আবুল বাসার সুজন। শনিবার দুপুরে তার নিজ বাসায় সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে প্রায় ৪ শতাধিক মানুষের মাঝে তিনি খাদ্য সামগ্রী ও নগদ অর্থ বিতরণ করেন।

খাদ্য সামগ্রী হিসেবে মুরগি, পোলার চাল, সেমাই, চিনি, চাল, ডাল, তেলসহ বিভিন্ন উপকরণ দেন। এসময় বান্দুরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. হিল্লাল মিয়া উপস্থিত ছিলেন।

এরআগে করোনার কারনে কর্মহীন হয়ে পড়া সাড়ে প্রায় ৫৫০ দিনমজুর ও মধ্যবিত্ত পরিবারের মাঝে নিজ অর্থায়নে খাদ্য সহায়তা হিসেবে চাল, ডাল, আটা, আলু, পেয়াজ, তেল, চিনি ও চা পাতা বিতরণ করেছেন। পাশাপাশি খ্রিস্টান সম্প্রদায়কে বিভিন্ন গির্জার পালপুরহিতদের মাধ্যমে খাদ্য সহায়তা করেন এই ব্যবসায়ী। তালিকা তৈরির করতে তিনি স্থানীয় ৭ সমাজের সমাজ পতি এবং স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. জিয়াউদ্দিনের সহযোগিতা নেন।

বান্দুরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের মো. হিল্লাল মিয়া বলেন, কোন ধরনের প্রচারণা ছাড়াই করোনার প্রথম থেকে কর্মহীন মানুষের মাঝে খাদ্য সহায়তা দিয়ে আসছেন ব্যবসায়ী সুজন। ঈদ উপলক্ষে আজও তিনি অসহায় মানুষদের পাশে দাড়িয়ে। এটা একটি প্রশংসনীয় উদ্যোগ। প্রতিটি সামর্থনবান ব্যক্তির উচিত এভাবে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানো।  নবাবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এইচ এম সালাউদ্দিন মনজুর দিকনির্দেশনা সঠিকভাবে তিনি মেনে ত্রাণ বিতরণ করেছেন।

এব্যাপারে ব্যবসায়ী আবুল বাসার সুজন বলেন, করোনার কারনে কর্মহীন মানুষগুলো পরিবার পরিজন নিয়ে কস্টে জীবনযাপন করছে। অত্যন্ত ঈদের দিন যেন তারা পরিবার নিয়ে না খেয়ে থাকে সে জন্য অসহায় পরিবারগুলোকে খাদ্য সামগ্রী দেওয়া হয়েছে। নবাবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এইচ এম সালাউদ্দিন মনজু’র  দিকনির্দেশনা মেনে আমি করোনার প্রথম থেকে অসহায় পরিবারগুলোর পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেছি। আজ আমি ত্রাণ নয়, হতদরিদ্র ও অসহায় মানুষদেরকে ঈদ উপহার দিলাম।



সর্বাধিক পঠিত

Comments

এই পেইজের আরও খবর

মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করুন

nazrul